বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে হারের পর আজ দুপুরে তিন ম্যাচের টি টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল। গত নভেম্বরে একটি পূর্ণাঙ্গ সিরিজ খেলতে বাংলাদেশ সফরে আসে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হালে পানি পায়নি ক্যারিবিয়ানরা। তবে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ দাপটের সঙ্গেই জেতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। কিন্তু প্রথম এবং তৃতীয় ম্যাচ জিতে ওয়ানডে সিরিজও নিজেদের করে নেয় টাইগার বাহিনী।

উইকেট পাওয়ার পর মোস্তাফিজুর রহমান; image source: www.icc-cricket.com

অবশেষে আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে তিন ম্যাচের টি টোয়েন্টি সিরিজ। সিরিজের প্রথম ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে সিলেটে।  পরবর্তী দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ঢাকা শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে।

টেস্ট থেকে ওয়ানডে, ওয়ানডে থেকে টি টোয়েন্টি। ক্রিকেটের পরিসর যতই ছোট হয়ে আসে, ততই যেন শক্তিশালী হয়ে উঠে ক্যারিবিয়ানরা। বর্তমান আইসিসির টি-টোয়েন্টি চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েটের কন্ঠেও শোনা গেলো একই সুর। টি টোয়েন্টি সিরিজ জয় করে স্বদেশীদের ক্রিসমাসের উপহার দিতে চান কার্লোস ব্রাথওয়েটরা। এ প্রসঙ্গে ব্রাথওয়েট বলেন,

সবাই বাড়িতে ফিরছে, তাদের একটি ক্রিসমাস উপহার প্রাপ্য।  আশা করছি, একটি জয় দিয়ে সিরিজ শেষ করতে পারব। আমরা এখনো মনে করি, টি-টুয়েন্টি আমাদের জন্য আদর্শ ফরম্যাট।

কার্লোস ব্রাথওয়েট image source: bd24report.com

অবশ্য টি টোয়েন্টিতেও তাদের সময় ভালো যাচ্ছে না। চলতি বছরের জুলাইয়ে নিজেদের ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ জিতলেও হেরেছিল ওয়ানডে ও টি টোয়েন্টি সিরিজ। এরপর ভারত সফরে টেস্টে ২-০ ব্যবধানে হোয়াইটওয়াশ হওয়ার পর ওয়ানডেতে ৩-১ ও টি টোয়েন্টিতে ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হেরেছিল ক্যারিবিয়ানরা। তাই এই সিরিজটি জিতে ভালো বছর শেষ করতে চাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,

সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের কোনো গর্ব করার মতো ফলাফল নেই। কিন্তু বছরটি ভালোভাবে শেষ করারএখনো দারুণ সুযোগ আছে।

অপর দিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট কাটাচ্ছে নিজেদের আরেকটি সেরা বছর। এ বছরের জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে ও টি টোয়েন্টি সিরিজ জয় করে বাংলাদেশ। এরপর এশিয়া কাপে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে ফাইনালে উঠে বাংলাদেশ। যদিও ফাইনালে ভারতের কাছে হেরে যায় টাইগাররা। এছাড়া চলতি সিরিজে ওয়েস্ট ইন্ডিজেকে টেস্ট ও ওয়ানডেতে হারিয়েছে বাংলাদেশ। তবে টি টোয়েন্টি সিরিজ যে বাংলাদেশের জন্য কঠিন হবে সে কথা ভুলছেন না খেলোয়াড় বা কোচ কেউই। এ প্রসঙ্গে টাইগার কোচ স্টিভ রোডস বলেন,

টি টোয়েন্টির ব্যাপারে মাশরাফি যেমন বলেছিল, এটি ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য সবচেয়ে শক্তিশালী  ক্রিকেটীয় ফরম্যাট। তারা বিশ্বচ্যাম্পিয়ন এবং তাদের হারানোও কঠিন হবে।তবে একই দলের বিপক্ষে আগে জয় পেলে কিছুটা স্বস্তি পাওয়া যায়। আমরা যেমন গত জুলাইয়ের টি টোয়েন্টিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারিয়েছি।

টাইগার কোচ স্টিভ রোডস ; image source: cricket97.com

স্কোয়াড

বাংলাদেশ স্কোয়াড

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রুবেল হোসেন, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাজমুল ইসলাম অপু, মোহাম্মদ মিথুন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, আবু হায়দার রনি ও আরিফুল হক

ওয়েস্ট ইন্ডিজ স্কোয়াড

কার্লোস ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), ড্যারেন ব্রাভো, শাই হোপ, শিমরন হেটমায়ার, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, কেসরিক উইলিয়ামস, কেমো পল, খারি পিয়েরে, এভিন লুইস, নিকোলাস পুরান, রোভম্যান পাওয়েল, দিনেশ রামদিন, শেরফান রাদারফোর্ড, শেলডন কট্রেল, ওশানে থমাস

দুই দলের মুখোমুখি পরিসংখ্যান

টি টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ ও ওয়েস্ট ইন্ডিজ এখন পর্যন্ত মুখোমুখি হয়েছে সর্বমোট ৯ বার। যার মাঝে বাংলাদেশ জিতেছে চারবার এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজ জিতেছে চারবার। বাকি একটি ম্যাচ পরিত্যক্ত হয়েছে। তবে সর্বশেষ তিনটি ম্যাচের পরিসংখ্যানে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। শেষ তিনটি ম্যাচের দুটিতেই জয় লাভ করেছে তারা।

image source: www.icc-cricket.com

দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে বাংলাদেশের দলীয় সর্বোচ্চ ইনিংস ১৮৪ রান এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১৯৭ রান। এছাড়া সর্বনিম্ন দলীয় ইনিংস বাংলাদেশের ৯৮ রান, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ১১৯ রান। দুই দলের মুখোমুখি লড়াইয়ে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। তামিম ৯ টি ম্যাচ খেলে ৩২.৪২ গড়ে ২২৭ রান সংগ্রহ করেছেন। অপরদিকে তামিমের থেকে এক রান কম নিয়ে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন মারলন স্যামুয়েলস।

Image source: edailysports.com

এছাড়া এক ইনিংসে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৮৮ রান করেছেন তামিম ইকবাল। এরপর ৮৫ রান করে দ্বিতীয় অবস্থানে আছেন মারলন স্যামুয়েলস।  দুই দলের লড়াইয়ে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেট শিকারী বোলার সাকিব আল হাসান। তিনি ৭ ম্যাচ খেলে  মোট ১১ টি উইকেট লাভ করেন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে কেমো পল নিয়েছেন সর্বোচ্চ সাতটি উইকেট।

শক্তিমত্তা

ওয়ানডের ন্যায় টি টোয়েন্টিতে শক্তিশালী দল না হলেও ইদানীং বেশকিছু ম্যাচে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। চলতি বছরের জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২-১ টি টোয়েন্টি সিরিজ জেতে বাংলাদেশ। এছাড়া স্বাগতিক হিসেবে কিছু সুবিধা থাকবেই বাংলাদেশের জন্য।

বাংলাদেশের সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি স্কোয়াড থেকে বাদ পড়েছেন সাব্বির রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন ও আবু জায়েদ রাহী। এদের পরিবর্তে দলে ঢুকেছেন মোহাম্মদ মিথুন ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। এছাড়া ওয়ানডে ম্যাচে ভালো ফর্মে না থাকায় টি-টোয়েন্টি সিরিজে রাখা হয়নি ইমরুল কায়েসকে।

দুর্দান্ত খেলেছেন হোপ; image source: www.icc-cricket.com

অপরদিকে টি টোয়েন্টিতে দুবারের বিশ্বকাপ জয়ী ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সাম্প্রতিক অতীতে কোন ভাল ফলাফল নেই। সর্বশেষ পাঁচটি টি টোয়েন্টিতে পাঁচটি ম্যাচেই হেরেছে ক্যারিবিয়ানরা। তবে বছরের শেষটা তারা রঙে রঙিন করতে চান বলে জানিয়েছেন অধিনায়ক কার্লোস ব্রাথওয়েট।

তিন ম্যাচের এই টি টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ফিরেছেন এভিন লুইস, পেসার কেসরিক উইলিয়ামস এবং শেলডন কট্রেল। ওয়ানডেতে দুর্দান্ত ছন্দে থাকা ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান শাই হোপ জ্বলে উঠতে পারেন টি টোয়েন্টিতেও, ভোগাতে পারেন বাংলাদেশি বোলারদের।

সম্ভাব্য একাদশ

বাংলাদেশ

সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আবু হায়দার রনি, মুস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, আরিফুল হক, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ

কার্লোস ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), ড্যারেন ব্রাভো, শাই হোপ, শিমরন হেটমায়ার, ফ্যাবিয়ান অ্যালেন, কেসরিক উইলিয়ামস, কেমো পল, এভিন লুইস, নিকোলাস পুরান, রোভম্যান পাওয়েল, ওশানে থমাস।

Featured image source: cricket Australia