বক্সিং ডে উপলক্ষ্যে আগামীকাল মেলবোর্নে সিরিজের তৃতীয় টেস্ট খেলার জন্য মাঠে নামবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া। বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টা ৩০ মিনিটে ম্যাচটি শুরু হবে। সরাসরি সম্প্রচার করবে সনি সিক্স ও সনি লাইভ অ্যাপ।

সিরিজের প্রথম দুইটি টেস্টের মধ্যে ১টিতে ভারত ও অন্যটিতে অস্ট্রেলিয়া জয় পেয়েছে। ফলে ঐতিহাসিক মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সিরিজের তৃতীয় টেস্ট ম্যাচটি যে দল জিততে পারবে, তারাই সিরিজে এগিয়ে যাবে। সেক্ষেত্রে সফরকারী ভারতের সামনে সুযোগ রয়েছে ঘরের মাঠে আবারো অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে এগিয়ে যাওয়ার। তবে অ্যাডিলেডে প্রথম টেস্টে পরাজিত হলেও পার্থ টেস্টে ভারতকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে অজিরা।

বিরাট কোহলি; Source: foxsport.com.au

ঐতিহাসিক বক্সিং ডে টেস্টের আগে সবার নজর এখন মেলবোর্নের উইকেটের দিকে। গত বছর অ্যাশেজের পর এমসিজির উইকেটকে বাজে বলে আখ্যা দিয়েছিল আইসিসি। তবে নতুন কিউরেটরের অধীনে মেলবোর্নের পিচকে আবারো নতুন করে তৈরি করা হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, এই টেস্টের মধ্য দিয়ে ঐতিহাসিক এই ক্রিকেট স্টেডিয়াম তার সুনাম অক্ষুণ্ণ রাখবে।

ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার চলতি টেস্ট সিরিজে দুই দলের খেলোয়াড়রা পিচ থেকে সামান্যতম সহায়তা পেলেও সেটাকে কাজে লাগিয়েছে। ফলে দুই ক্রিকেট পরাশক্তির শেষ দুটি টেস্ট লড়াই ছিল বছরের সেরা আকর্ষণ। মেলবোর্ন টেস্টেও তার ধারাবাহিকতা বজায় থাকবে বলেই মনে করছেন ক্রিকেট বিশ্লেষকরা।

অজি খেলোয়াড়দের উচ্ছ্বাস; Source: theguardian.co.uk

তবে মেলবোর্নের পিচ কেমন আচরণ করবে, সেটা এখনো অজানা। ফলে ভারত যদি পার্থের মতো এই টেস্টেও চার জন পেসার খেলায়, সেক্ষেত্রে তারা আবারো ভুল করে বসতে পারে। কারণ পার্থের উইকেটে ঘাস থাকা সত্ত্বেও সবচেয়ে বেশি উইকেট নিয়েছিলেন স্পিনার নাথান লায়ন। সেটিকে মাথায় রেখে দল নির্বাচন করতে হবে ভারতকে। কেননা চলতি সিরিজের দুটি টেস্টেই পার্থক্য গড়ে দিয়েছেন স্পিনাররা।

ভারতীয় ক্রিকেট দল; Source: moneycontrol.com

তবে ভারত যদি সিরিজের তৃতীয় টেস্টটি জিততে পারে, তাহলে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথমবারের মতো টেস্ট সিরিজ জয়ের রেকর্ড সৃষ্টি করার সম্ভাবনা থাকবে কোহলি বাহিনীর। তবে নানা সমস্যা পাড়ি দেওয়া অজিদের মনোভাব হচ্ছে, বিনা যুদ্ধে নাহি দিবো সূচ্যগ্র মেদিনী।

টিম নিউজ

ভারতের জন্য সবচেয়ে দুশ্চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে তাদের ওপেনিং জুটি। প্রথম দুটি টেস্টেই ব্যর্থ হয়েছেন লোকেশ রাহুল ও মুরালি বিজয়। সে কারণে মেলবোর্ন টেস্টের আগে দলে ডাকা হয়েছে ঘরোয়া ক্রিকেটে ফর্মে থাকা মায়াঙ্ক আগারওয়ালকে।

মায়াঙ্ক আগারওয়াল; Source: espncricinfo.com

মেলবোর্ন টেস্টে রাহুল ও বিজয় দুজনই বাদ পড়তে পারেন। রাহুলের জায়গায় খেলবেন মায়াঙ্ক এবং বিজয়ের জায়গায় খেলতে পারেন পার্থ টেস্টে ছয় নম্বরে ব্যাট করা হনুমা বিহারিকে। এদিকে চোট কাটিয়ে বর্তমানে পুরোপুরি ফিট রোহিত শর্মা। তিনি হনুমার জায়গায় ব্যাট করবেন বলে জানা গেছে।

তবে সফরকারী ভারতের জন্য বড় চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের ইনজুরি। মেলবোর্ন টেস্টে তার খেলার সম্ভাবনা খুবই কম। তার জায়গায় খেলতে পারেন আরেক স্পিনার রবিন্দ্র জাদেজা। তবে অশ্বিনের অনুপস্থিতিতে ভারতের শক্তিমত্তা অনেকাংশে কমে যাবে, সে বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই।

রবিচন্দ্রন অশ্বিন; Source: theage.com.au

টেস্ট দলে ফেরার সম্ভাবনা রয়েছে হার্দিক পান্ডিয়ার।  কিন্তু ভারতীয় কোচ রবি শাস্ত্রী তাকে কার বদলে খেলাবেন,  সে বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি। ফলে মেলবোর্ন টেস্টে তার মাঠে নামা এখনো পুরোপুরি নিশ্চিত নয়।

অন্যদিকে, অস্ট্রেলিয়া দলে ডাক পেয়েছেন অলরাউন্ডার মিচেল মার্শ। তিনি পিটার হ্যান্ডসকম্বের পরিবর্তে মাঠে নামবেন। এছাড়া অজিদের একাদশে তেমন কোনো পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই।

পিচ কন্ডিশন

 মেলবোর্নে রান করা অন্যান্য মাঠের তুলনায় কিছুটা কঠিন। পিচে ঘাস থাকার সম্ভাবনা রয়েছে, ফলে পেসারদের জন্য এটি সহায়ক হবে। পেস সহায়ক পিচ হওয়ায় ব্যাটসম্যানদের বেশ দেখেশুনে খেলতে হবে। কারণ ঘাসের পিচে দ্রুত গতিতে রান তোলার চেয়ে উইকেট ধরে রাখাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ড; Source: telegraph.co.uk

তবে মেলবোর্নের উইকেটে ঘাস থাকলেও ব্যাটসম্যানরা একেবারে পিছিয়ে থাকবেন না। তারাও তাদের ব্যাটিং দক্ষতা প্রদর্শনের সুযোগ পাবেন। তবে অস্ট্রেলিয়ার চিরাচরিত পেস কন্ডিশনে স্পিনারদেরর ভালো করার সম্ভাবনা অনেক কম। প্রথম দুই টেস্টে স্পিনাররা ভালো করলেও, মেলবোর্ন টেস্টের ফল নির্ধারণ করবেন পেসাররাই। সেক্ষেত্রে এগিয়ে থাকবে অজিরা।

পেস নির্ভর উইকেট হওয়ার কারণে যারা টস জিতবে, তাদের আগে বল করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। তবে এই পিচে প্রথমে ব্যাট করে ৩৫০ রান অতিক্রম করতে পারলেই সেটা লড়াই করার জন্য যথেষ্ট হবে।

যাদের উপর নজর থাকবে

মেলবোর্ন টেস্টে বরাবরের মতো ভারতীয় খেলোয়াড়দের মধ্যে অধিনায়ক বিরাট কোহলি সবচেয়ে বেশি স্পটলাইটে থাকবেন। চলতি টেস্ট সিরিজে এখন পর্যন্ত দুইটি সেঞ্চুরি এসেছে, তার মধ্যে একটি ছিল কোহলির। তিন প্রথম দুই টেস্ট থেকে মোট ১৭৭ রান করেছেন। তৃতীয় টেস্টে তার ব্যাট হাসলে ভারতও হাসবে।

নাথান লায়ন; Source: cricket.com.au

অন্যদিকে, অজি স্পিনার নাথান লায়ন প্রথম দুই টেস্টে ১৬ উইকেট তুলে নিয়েছেন, এর মধ্যে তিনি দুইবার বিরাট কোহলিকে আউট করেছেন। মেলবোর্নে পেস উইকেট হওয়া সত্ত্বেও ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের তাকে বেশ দেখেশুনে খেলতে হবে।

তবে উইকেটে ঘাস থাকার কারণে উভয় দলের পেসাররা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন। এদিক থেকে মিচেল স্টার্ক ও মোহাম্মদ শামির উপর বাড়তি নজর থাকবে।

সম্ভাব্য একাদশ

অস্ট্রেলিয়া

অ্যারন ফিঞ্চ, মার্কাস হ্যারিস, উসমান খাজা, শন মার্শ, ট্রাভিস হেড, মিচেল মার্শ, টিম পেইন (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক), প্যাট কামিন্স, মিচেল স্টার্ক, নাথান লায়ন, জস হ্যাজেলউড

ভারত

মায়াঙ্ক আগারওয়াল, হনুমা বিহারি, চেতেশ্বর পূজারা, বিরাট কোহলি (অধিনায়ক), অজিঙ্কা রাহানে, রোহিত শর্মা, ঋষভ পন্ত (উইকেটরক্ষক), রবিন্দ্র জাদেজা, মোহাম্মদ শামি, ইশান্ত শর্মা ও জসপ্রিত বুমরা।

Featured Image: foxsports.com.au